বিয়ের কথা বলে স্কুলছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’, ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার সরকারি রাজু অডিটরিয়ামে এ ঘটনা ঘটে।

আজ শুক্রবার দুপুরে এ ব্যাপারে রায়পুরা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত ওই ছাত্রলীগ নেতার নাম আসাদুল হক চৌধুরী শাকিল। তিনি রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি।

পুলিশ ও নির্যাতিতার পরিবার জানান, ওই স্কুলছাত্রীর সঙ্গে শাকিলের ছয় মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় ওই ছাত্রীকে ফোন করে বিয়ের কথা জানায় শাকিল। এ সময় ওই ছাত্রীকে রায়পুরা পৌর এলাকার শ্রীরামপুরের সরকারি রাজু অডিটরিয়ামে ডেকে নেয়। কিন্তু বিয়ে না হওয়ায় ওই ছাত্রীকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। পরে রাত ১০টার দিকে বিয়ের কথা বলে আবারও ওই ছাত্রীকে অডিটরিয়ামে ডেকে আনেন ছাত্রলীগ নেতা শাকিল।

সেখানে ওই ছাত্রীকে কোমলপানীয় খাওয়ান। পরে ওই ছাত্রী অচেতন হয়ে পড়লে এক সহযোগীর সহায়তায় তাকে ধর্ষণ করেন শাকিল। জ্ঞান ফেরার পর ওই ছাত্রী চিৎকার করলে শাকিল পালিয়ে যান। এ সময় ৯৯৯-এ কল করলে পুলিশ ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন রায়পুরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম। এ বিষয়ে রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির বলেন, ‘শাকিলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’