নরসিংদীর শিবপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রকাশ্যে সালিসি বৈঠকে রুবেল মোল্লা নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আজ বিকেলে উপজেলার পুটিয়া ইউনিয়নের চরসুজাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রুবেল মোল্লা (৩০) উপজেলার পুটিয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মামুনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী জানায়, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মামুনের সাথে আওয়ামী লীগ নেতা রুবেলের বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধ মীমাংসার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে সালিস বৈঠক বসে। বৈঠকের একপর্যায়ে দুইপক্ষের লোকজনের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ মামুন লোহার বল্লম দিয়ে রুবেল মোল্লার গলায় আঘাত করে। গুরুতর আহতাবস্থায় রুবেলকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান নিউজ টোয়েন্টিফোরকে জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জেরেই এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত মামুনকে গণপিটুনি দেয় এলাকাবাসী। বর্তমানে মামুন পুলিশি হেফাজতে আটক রয়েছে।