ইমন-সালওয়া, দুই চিকিৎসকের পরিচয় গোয়ালন্দে

অনলাইন ডেস্ক ,ঢাকার বাইরের চলচ্চিত্র বীরত্বের শুটিঙ শুরু হয়েছে। এই চলচ্চিত্রে চিত্রনায়ক ইমনের বিপরীতে অভিনয় করছেন নিশাত নাওয়ার সালওয়া, যিনি ২০১৮ সালের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের প্রথম রানার আপ হয়েছিলেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজবাড়ি জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায় গিয়েছে ‘বীরত্ব’ চলচ্চিত্রের একটি দল। ওই দলে রয়েছেন চলচ্চিত্রের নায়ক নায়িকাও।

ইতোমধ্যে ছবিটির শুটিং শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইমন ও সালওয়া। জানা গেছে, উপজেলার দৌলতদিয়ার যৌনপল্লী, গোয়ালন্দসহ পদ্মার তীরবর্তী এলাকায় শুটিং হবে টানা ১৫ দিন। গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র মো. নিজামের বাড়িতে অবস্থান করছে ‘বীরত্ব’ ছবির কুশলীদের একটি অংশ।

চিত্রনায়ক ইমন বলেন, ‘এই চলচ্চিত্রে আমি মফস্বলের একজন চিকিৎসক, যে কি না এমবিবিএস পাশ করে এসেও উচ্চাভিলাষ বাদ দিয়ে একটি এনজিও’র চিকিৎসক হিসেবে মফস্বলে মানুষের সেবায় নিয়োজিত। এই চলচ্চিত্রে আমাকে চিকিৎসা সেবা দিতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর অভ্যন্তরে যেতে হয়। আমরা যৌনপল্লী বলতেই যৌনতার কথা ভাবি, যৌনপল্লীর ভেতরে যে একটা ভিন্ন জগত রয়েছে সেটা দর্শক দেখতে পাবে আমার চোখ দিয়ে।’

এই চলচ্চিত্রে নিশাত নাওয়ার সালওয়াও একজন চিকিৎসক। মফস্বল শহরের মেয়ের চিকিৎসক হয়ে ওঠার গল্প পরবর্তীতে, কালক্রমে ইমনের সঙ্গে পরিচয় হবে, যে পরিচয়ের পেছনেও আকস্মিক বিস্ময় এসে ধাক্কা দেবে।

সালওয়া বলেন, ‘আমার চরিত্রটি অন্যরকম কিছু নয়। একজন চিকিৎসক। যার জীবনের একটি গল্প রয়েছে। যার একটি সংগ্রামমুখর জীবন রয়েছে। এই অমসৃণ জীবনে চিকিৎসক হয়ে ওঠা ও ইমন ভাইয়ের সঙ্গে পরিচয়। যদিও সিনেমায় তিনি আমার নায়ক হয়ে যান। তবে সে গল্পটি মজার। আর পুরো চলচ্চিত্রের গল্প দর্শকদের ভালো লাগবে নিশ্চই। খুব সহজ চরিত্র হলেও এটি আমার কাছে নীরিক্ষণধর্মী-ই মনে হয়েছে। কেননা আমাকেও মাঝেমধ্যে যৌনপল্লীর ভেতরে যেতে হয়।’

‘বীরত্ব’ নির্মাণ করছেন সাইদুল ইসলাম রানা। পিংপং এন্টারটেইনমেন্টের প্রযোজনায় সিনেমাটি পরিচালনার পাশাপাশি চিত্রনাট্য ও সংলাপ করেছেন নির্মাতা রানা-ই।