পারটেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যানের দাফন সম্পন্ন

পারটেক্স গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য এম এ হাসেমের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। আজ শুক্রবার জুমার নামাজের পরে রাজধানীর গুলশান আজাদ মসজিদে জানাজা শেষে তাকে বনানীর কবরস্থানে দাফন করা হয়।

জানাজায় কিছু লোক অংশ নিতে না পারায় বেলা সোয়া ২টায় দ্বিতীয় দফায় এম এ হাসেমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ফুল দিয়ে সজ্জিত একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে তার লাশ বনানী কবরস্থানে নেওয়া হয়।

আজাদ মসজিদে জুমার নামাজের পর এম এ হাসেমের বড় ছেলে আজিজ আল কায়সার বাবার আত্মার মাগফিরাতের জন্য সবার কাছে দোয়া চান। কারও কাছে দেনা–পাওনা থাকলে তার সঙ্গে যোগাযোগের কথাও জানান।

এর আগে গত বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান এম এ হাসেম। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

মৃত্যুকালে তার স্ত্রী সুলতানা হাসেম এবং পাঁচ ছেলে আজিজ আল কায়সার, আজিজ আল মাহমুদ, আজিজ আল মাসুদ, রুবেল আজিজ, শওকত আজিজসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।

জানা গেছে, এম এ হাসেম ১৯৪৩ সালের ৩০ আগস্ট নোয়াখালীতে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৬২ সালে তামাকের ব্যবসার মাধ্যমে তার ব্যবসায়ী জীবনের সূচনা করেছিলেন। পরবর্তী সময়ে তিনি উৎপাদন ও পরিষেবাবিষয়ক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিশেষ করে ফার্নিচার, বোর্ড, খাদ্য ও পানীয়, প্লাস্টিক, কাগজ, তুলা, সুতা, পাট, রিয়েল এস্টেট, টেক্সটাইল, শিপিং, অ্যাগ্রো, গার্মেন্টস, এরোমেরিন লজিস্টিকস ইত্যাদি গড়ে তোলেন।

এম এ হাসেম সিটি ব্যাংক লিমিটেড এবং ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড ও জনতা ইনস্যুরেন্সের প্রতিষ্ঠা। তিনি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিরও অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা।