সুন্দরগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একই পরিবারের ৩ জনের মৃত্যু

Close up image of human hand holding cable

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের ধোপাডাঙ্গায় বাঁশের খুঁটি ভেঙে পড়ে থাকা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে একই পরিবারের তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৭টার দিকে দক্ষিণ ধোপাডাঙ্গায় এই ঘটনা ঘটে। সুন্দরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শামসুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। নিহতরা হলেন– দক্ষিণ ধোপাডাঙ্গা গ্রামের সৈয়দ আলীর স্ত্রী রেখা বেগম (৫০), তার ছেলে আজাউল হক (৩৫) ও নাতী সুজন মিয়া (১৩)।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় বাড়ির পাশের জমিতে ধানের বীজ ফেলতে যাচ্ছিলেন রেজাউল। পথে মাঠে হেলে থাকা বাঁশের খুঁটিতে টানা বৈদ্যুতিক তারের সঙ্গে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন তিনি। বিষয়টি টের পেয়ে তার মা রেখা বেগম ও ভাতিজা সুজন তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে তারাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এ অবস্থায় স্থানীয়রা বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজাউলকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে বাড়িতেই মারা যান তার মা ও ভাতিজা।

ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোকলেছুর রহমান রাজু বলেন, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের উদাসীনতা ও কর্তব্য অবহেলার জন্যই মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে, ঘটনাস্থলে থাকা এসআই মো. শামসুল ইসলাম জানান, বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে তিনজনের মৃত্যুর এই ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। নিহতদের লাশ পরিবারের লোকজন বাড়িতে নিয়ে গেছেন।