সাবেক এমপি ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক,জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী (৪৯) আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)। বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা গেছেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গুরুতর অসুস্থ হলে সাবেক এমপি ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পীকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। শ্বাসকষ্টের জন্য তাকে ভেন্টিলেশনও দেয়া হয়। তবে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ (বৃহস্পতিবার) না ফেরার দেশে চলে যান তিনি।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ জানান, চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী মারা যান।

শ্বাসকষ্ট জনিত কারণে গত শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পীকে বিএসএমএমইউতে ভর্তি করা হয়। শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় পরে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পীর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। শোকবার্তায় স্পিকার ফজিলানুন্নেসা বাপ্পীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া এবং চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরীও শোক প্রকাশ করেছেন।

ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পীর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীও। শোকবার্তায় মোকতাদির চৌধুরী ফজিলাতুন্নেছার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী ১৯৭০ সালের ৩১ ডিসেম্বর নড়াইলে জন্মগ্রহণ করেন। পেশায় আইনজীবী ফজিলাতুন্নেছা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি সাথে জড়িত ছিলেন। তিনি যুব মহিলা লীগের নেত্রী ছিলেন।

২০০৯ সালে নবম জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে প্রথমবারের মতো সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর দ্বিতীয়বারের মতো সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্য হন তিনি।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সাবেক প্রসিকিউটর ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্বেও ছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে